Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

” জল নিকাশি ব্যবস্থা না থাকায় সামান্য বৃষ্টিতেই দোকানের ভেতরে জল ঢোকায় খুব্ধ দোকান মালিকরা।”

নিজস্ব ডেস্ক, এডিএইচ নিউজ, হরিশ্চন্দ্রপুর, মালদাঃ

মালদা জেলার হরিশচন্দ্রপুর থানা এলাকার হরিশ্চন্দ্রপুর শহীদমোড় থেকে হসপিটাল মোড় পর্যন্ত যে রাস্তার জন্য বহু আন্দোলন,অনশন, প্রতিবাদ, রাস্তা ঘেরাও প্রভৃতি করেও বহুদিনের প্রতীক্ষার পর পুনর্নির্মাণ হয় সেই রাস্তা। কিন্তু হরিশ্চন্দ্রপুরের স্থানীয় বাসিন্দাদের প্রথম থেকেই অভিযোগ ছিল অদক্ষ শ্রমিক দ্বারা নির্মাণ কার্য এবং নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করা নিয়ে। রাস্তার কোথাও উঁচু আবার কোথাও নিচু হয়ে থাকার ফলে বৃষ্টি হলেই জল জমে থাকে তা নিয়েও অনেকের মধ্যে ক্ষোভ দেখা গেছে।

গত বুধবার সন্ধ্যা বেলা টানা কিছুক্ষণ বৃষ্টি হলে রাস্তা উঁচু হওয়ার কারণে কো-অপারেটিভ ব্যাংকের পার্শ্বে বেশ কিছু দোকানের সামনে জল জমে যায়। হরিশ্চন্দ্রপুর শহীদ মোড় থেকে স্টেট ব্যাংক পর্যন্ত জল নিকাশি ব্যবস্থা না থাকায় জল জমে ধীরে ধীরে দোকানের ভেতরে ঢুকতে শুরু করে। দোকানের ভেতরে সারারাত জল জমে থাকে ফলে দোকান মালিকদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

স্থানীয় দোকানদার প্রদীপ রজক, জগন্নাথ দে, আরজাউল হক, কবিরুল ইসলাম সহ বেশ কয়েকটি দোকানদার ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান যে রাস্তা তৈরির সময় থেকেই জল নিকাশি ব্যবস্থার জন্য বলছি কেউ কর্ণপাত করছে না। আমাদের দোকানের পার্শ্বেই পঞ্চায়েত অফিস সেখানেও বারংবার জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি। সামান্য বৃষ্টি হলেই জল নিকাশি ব্যবস্থা না থাকায় সেই জল জমে দোকানের ভেতরে ঢুকে যায় এবং দোকানের বেশকিছু মূল্যের দ্রব্য নষ্ট হয়ে পড়ে।
গতকাল সকালে দোকানে এসে দেখি আগের দিনের সন্ধ্যাবেলার বৃষ্টিতে দোকানে জল ঢুকে নিচে থাকা জিনিসপত্র সবকিছুই নষ্ট হয়ে যায়। আমরা চায় দ্রুত ড্রেন তৈরি করে জল নিকাশি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক। নইলে বারবার আমাদের দোকানের দ্রব্যাদি নষ্ট হয়ে ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!